কোরআন প্রতিযোগিতা জিতে বাংলাদিশ বালক পেল ৫৩ লাখ টাকা

 

দুবাই কোরআন অ্যাওয়ার্ড জিতল বাংলাদেশি বালক হাফেজ মোহাম্মদ তরিকুল ইসলাম। বৃহস্পতিবার দুবাইয়ের কালচারাল অ্যান্ড সায়েন্টিফিক অ্যাসোসিয়েশন মিলনায়তনে তার হাতে পুরস্কার তুলে দেন দুবাইয়ের ক্রাউন প্রিন্স শাইখ আহমাদ বিন মোহাম্মদ বিন রাশিদ আল মাকতুম।
২১ তম দুবাই ইন্টারন্যাশনাল হলি কোরআন অ্যাওয়ার্ড প্রতিযোগিতার প্রথম পুরস্কার হিসেবে তরিকুলকে আড়াই লাখ দিরহাম দেয়া হয়। যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ৫৩ লাখ টাকা।

প্রতিযোগিতায় বিশ্বের ১০৩ জন প্রতিযোগীকে পিছনে পেলে প্রথম স্থান অর্জন করে ১৩ বছর বয়সী তরিকুল ইসলাম।সংযুক্ত আরব আমিরাতের ধর্ম ও আওকাফ মন্ত্রণালয় ‘শায়খা হিন্দ কিনতে মাককতুম কোরআন প্রতিযোগিতা’ শিরোনামে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

কুমিল্লার সন্তান হাফেজ তরিকুল ইসলাম যাত্রাবাড়ীর মারকাজুত তাহফিজ ইন্টারন্যাশনাল মাদরাসার ছাত্র। তার বাবার নাম ইমাম।
সংযুক্ত আরব আমিরাতের বাণিজ্যিক রাজধানী দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত ২১তম আন্তর্জাতিক পবিত্র কুরআন প্রতিযোগিতায় বিশ্বের ১০৩ জন প্রতিযোগীকে পিছনে পেলে প্রথম স্থান অর্জন করেছে ১৩ বছর বয়সী বাংলাদেশি হাফেজ মুহাম্মদ তারিকুল ইসলাম।

আল-কোরআন পুরস্কার সংস্থার প্রেসিডেন্ট ইব্রাহীম বু মুলহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, দুবাই ও উত্তর আমিরাত বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল এস বদিরুজ্জামান, কনস্যুলেটের লেবার কাউন্সিলর এএসএম জাকির হোসেন, আমিরাতের সম্মানিত ব্যক্তিবর্গসহ বিভিন্ন দেশে থেকে আগত অতিথি।

অন্যান্য বিজয়ীয়া হলেন, যথাক্রমে হুজাইফ সিদ্দিকী (মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র), মাদুর জোবে (গাম্বিয়া), আহমেদ বিন আব্দুল আজিজ ইব্রাহিম ওবাইদাহ (সৌদি আরব), রশিদ ইবনে আবদুল রহমান আলানি (তিউনিশিয়া), মোহনা আহমেদ (বাহরাইন), মোহাম্মদ হাদি আল-বশির (লিবিয়া), ওমর মাহমুদ সায়েদ আলী সৈয়দ আহমেদ রিফাই (কুয়েত), মোহামমু আবেকা (মৌরিতানিয়া), হাবিনানা মিকিনি (রওয়ানা) এবং মোহামেদ ইসমাইল মোহাম্মদ নাগিব তাহা (মিশর)।