ভেনেজুয়েলায় প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

 

অনলাইন ডেস্ক
প্যাসিফিকনিউজটোয়েন্টিফোর.কম

সরকার বিরোধী বিক্ষোভে আবারো ফুঁসে উঠেছে ভেনেজুয়েলা। দেশটির প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো নতুন সংবিধান তৈরির প্রস্তাব দেয়ার পর আবারো বিক্ষোভ শুরু হয়। অন্যদিকে আগাম নির্বাচনের ডাক দিয়েছে বিরোধী দলগুলো।

বিবিসি জানিয়েছে, গত এক মাসের বিক্ষোভে দেশটিতে ৩০ জন নিহত হয়েছে। বিক্ষোভে রাজধানী কারাকাস শহর রীতিমতো স্থবির হয়ে পড়ে। শহর জুড়ে বিক্ষোভকারীরা রাস্তাঘাট অবরোধ করে রাখে। নিরাপত্তা বাহিনীর সাথে বিক্ষোভকারীদের দফায় দফায় সংঘর্ষ বাধে। ভেনেজুয়েলাতে গত এক মাস ধরেই এমন সহিংস বিক্ষোভ চলছে।

প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো দেশটিতে নতুন সংবিধান তৈরির প্রস্তাব দিয়ে ৫০০ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করার পরই নতুন করে আবার বিক্ষোভের শুরু। মি মাদুরো বলছেন, বিদেশি শক্তির সাথে ষড়যন্ত্র করে তাকে উৎখাতের চেষ্টা চলছে। আর তাই তা প্রতিরোধে দরকার নতুন সংবিধান।

কিন্তু তা মানতে রাজি নন বিরোধীরা। বিরোধী নেতাদের একজন হেনরিক কাপ্রিলাস বলছেন, নির্বাচন যাতে না হয়, সেটিই তার ঘোষণার মুল উদ্দেশ্য। তার এই উদ্দেশ্য প্রতিহত করতে বিক্ষোভকারীরা ভেনেজুয়েলার রাস্তাতেই থাকবে বলে তিনি ঘোষণা দেন।

দেশটিতে গত কয়েক বছর ধরে চলছে মারাত্মক খাদ্য সংকট আর ভয়াবহ মুদ্রাস্ফীতি। আর সেজন্যে প্রেসিডেন্ট মাদুরোকে দায়ী করে বিরোধী দলগুলো। বুধবার আরো বড় ধরনের বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে তারা।
অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলের সরকার বলছে মাদুরোর পরিকল্পনা আসলে ক্ষমতায় থাকার ছলচাতুরী।